খালেদা জিয়ার অবস্থা আশঙ্কাজনক

0
12

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে ফের রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ভর্তি করার পর সিসিইউতে বিশেষজ্ঞ মেডিকেল বোর্ডের সার্বক্ষণিক পর্যবেক্ষণে তার চিকিৎসা চলছে। শুক্রবার রাত সাড়ে ৩টার দিকে বেগম খালেদা জিয়া এভারকেয়ার হাসপাতালের ক্রিটিক্যাল কেয়ার ইউনিটে (সিসিইউ) ভর্তি করা হয় বলে জানিয়েছেন তার ব্যক্তিগত চিকিৎসক ডা. এজেডএম জাহিদ হোসেন।
তিনি বলেন, চিকিৎসকদের পরামর্শক্রমে ম্যাডামকে দ্রুত হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। মেডিকেল বোর্ডের নিবিড় পর্যবেক্ষণে ম্যাডামের চিকিৎসা চলছে। তাকে সার্বক্ষণিক মনিটরিং করছেন চিকিৎসকরা। এর বেশি কিছু বলার নেই। খালেদা জিয়ার চিকিৎসার জন্য দেশের মানুষের কাছে দোয়া চেয়েছেন তিনি। ওদিকে গতকাল খালেদা জিয়াকে হাসপাতালে দেখে আসার পর মির্জা ফখরুল সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, খালেদা জিয়ার অবস্থা ক্রিটিক্যাল। মেডিকেল বোর্ডের অধীনে তার চিকিৎসা চলছে। দলীয় চেয়ারপারসনের জন্য তিনি দেশবাসীর দোয়া কামনা করেন।
এভারকেয়ার হাসপাতালের বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক অধ্যাপক শাহাবুদ্দিন তালুকদারের নেতৃত্বে একটি মেডিকেল বোর্ডের অধীনে তিনি চিকিৎসাধীন রয়েছেন।
খালেদা জিয়াকে হাসপাতালে ভর্তির পর মোডিকেল বোর্ড কয়েক দফা বৈঠক করেছেন বলেও জানিয়েছেন জাহিদ হোসেন।
৭৯ বছর বয়সী খালেদা জিয়া ডায়াবেটিস, আর্থারাইটিস ছাড়াও হৃদরোগ, ফুসফুস, লিভার, কিডনি, বিভিন্ন জটিল রোগে ভুগছেন।

খালেদা জিয়ার অবস্থা ক্রিটিক্যাল: ফখরুল
ওদিকে শনিবার দুপুরে বিএনপি মহাসচিব এভারকেয়ার হাসপাতালে বেগম খালেদা জিয়ার চিকিৎসায় গঠিত মেডিকেল বোর্ডের সদস্যদের সঙ্গে কথা বলার পর গণমাধ্যমকে বলেন, আমি আজকে দেড়টায় ম্যাডামকে দেখতে এভারকেয়ার হাসপাতালে গিয়েছিলাম। এখন তিনি সিসিইউতে আছেন। তার অবস্থা অত্যন্ত আশঙ্কাজনক এবং ডাক্তাররা এখন ভেতরে কাউকে যেতে দিচ্ছেন না। আমি তার চিকিৎসায় নিয়োজিত ডাক্তারদের সঙ্গে কথা বলে যেটা বুঝলাম যে, তার অবস্থা বেশ ক্রিটিক্যাল। তারা আজকে সন্ধ্যায় সম্ভবত আবার বোর্ড মিটিং করবেন এবং এই বোর্ড মিটিং করে তারা পরবর্তী করণীয় নির্ধারণ করবেন।
তিনি বলেন, আমি আহ্বান জানাতে চাই জনগণের কাছে- তারা যেন ম্যাডাম যাতে সুস্থ হোন সেজন্য দোয়া করেন। খালেদা জিয়ার ব্যক্তিগত চিকিৎসক অধ্যাপক এজেডএম জাহিদ হোসেন বলেন, বিএনপি মহাসচিব এসেছিলেন, মেডিকেল বোর্ডের চিকিৎসকদের সঙ্গে কথা বলেছেন। ম্যাডাম সিসিইউতে ডাক্তারদের নিবিড় পর্যবেক্ষণে আছেন। চিকিৎসা চলছে। নতুন করে কিছু বলার মতো নেই।

ঢাকাসহ সারা দেশে বিএনপি’র দোয়া কর্মসূচি: দলের চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার আশু সুস্থতা কামনায় রোববার ঢাকাসহ সারা দেশে দোয়া ও মিলাদ মাহফিলের কর্মসূচি ঘোষণা করেছে বিএনপি। ঢাকায় এই কর্মসূচি সকাল সাড়ে ১১টায় নয়াপল্টনে অনুষ্ঠিত হবে।

শনিবার রাতে রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপি’র কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এই কর্মসূচি ঘোষণা করেন দলটির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

রিজভী বলেন, রোববার ঢাকাসহ সারা দেশে জেলা ও মহানগরে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার আশু সুস্থতা কামনায় দোয়া ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত হবে। ঢাকায় সকাল সাড়ে ১১টায় নয়াপল্টনে এই দোয়া ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত হবে। এতে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ দলের সিনিয়র নেতারা উপস্থিত থাকবেন।
রিজভী বলেন, খালেদা জিয়াকে ধুঁকেধুঁকে শেষ করার যে গভীর নীল-নকশা, সেই নীল-নকশা থেকে সরকার সরেনি। এজন্য আজকে তিনি মৃত্যুর সঙ্গে লড়াই করছেন।

ওদিকে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার রোগমুক্তি কামনা করে নয়াপল্টনে জামে মসজিদে মিলাদ ও বিশেষ দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার বাদযোহর বিএনপি’র সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীসহ দলটির নেতাকর্মীরা এই মিলাদ ও দোয়া মাহফিলে অংশ নেন।

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন- বিএনপি’র যুগ্ম মহাসচিব আবদুস সালাম আজাদ, স্বেচ্ছাসেবক বিষয়ক সম্পাদক মীর সরাফত আলী সপু, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুল খালেক, মাহবুবুল হক নান্নু, আমিনুল ইসলাম, সহ যুব বিষয়ক সম্পাদক মীর নেওয়াজ আলী নেওয়াজ, সহ গণশিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক আনিসুর রহমান তালুকদার খোকন, নির্বাহী কমিটির সদস্য তারিকুল আলম তেনজিং, আবদুস সাত্তার পাটোয়ারী প্রমুখ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here