Notice :
আমাদের নিউজ সাইট এ আপনার প্রতিষ্ঠান এর বিজ্ঞাপন দিন আর প্রতিষ্ঠান কে পরিচিত করে তুলুন বিশ্বব্যাপি।
সংবাদ শিরোনামঃ
স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিতে আদালতে লিয়াকত জাতীয় পত্রিকা “বিশ্ব মিডিয়া”তে কুষ্টিয়া জেলা প্রতিনিধি হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন মোঃ জাহাঙ্গীর আলম খাঁন কুউপ সদস্যদের জন্য বিশেষ ছাড় দিবেন স্মার্ট টেকনোলজি ইবির ভিসি বানানোর টেন্ডার : টাকার বস্তা নিয়ে আরেফিন এবারো মাঠে স্বপ্ন বাস্তবায়নের এক সফল কারিগর হারুন-উর-রশিদ আসকারী ড্রাগন চাষ করে সফলতার দ্বারপ্রান্তে মিরপুরের আসাদ ভেড়ামারায় সিরাজুল ইসলাম শিক্ষাবৃত্তি প্রদান কুষ্টিয়ায় ব্রি উদ্ভাবিত মৌসুমের আধুনিক ধানের জাতের উপর মাঠ দিবস হাতি সাঁকোর জলাবদ্ধতায় আটকে গেছে জনজীবন! কুষ্টিয়ায় ব্রি ধান৮৫ এর প্রদর্শণীর উপর মাঠ দিবস
খাদ্যাভাসে পরিবর্তন আনার পরামর্শ শাবিপ্রবি গবেষকের

খাদ্যাভাসে পরিবর্তন আনার পরামর্শ শাবিপ্রবি গবেষকের

শাবিপ্রবি প্রতিনিধিঃ সিলেটের শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের(শাবিপ্রবি) এক পুষ্টি বিষয়ক গবেষক নিজেদের অস্তিত্বের স্বার্থেই খাদ্যাভাসে পরিবর্তন আনার পরামর্শ দিয়েছেন জাতীয় পুষ্টি সপ্তাহ-২০১৯ এর শেষ দিনে।

আজ সোমবার (২৯ এপ্রিল) জাতীয় পুষ্টি সপ্তাহ-২০১৯ এর শেষদিনে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের সিলেট বিভাগীয় অতিরিক্ত পরিচালকের কার্যালয়ে এক প্রবন্ধ উপস্থাপনকালে এ পরামর্শ দেন তিনি। বাংলাদেশ ফলিত পুষ্টি গবেষণা ও প্রশিক্ষণ ইন্সটিটিউট (বারটান), আঞ্চলিক কেন্দ্র, সুনামগঞ্জের উদ্যোগে এ সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়। 


শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ফুড ইঞ্জিনিয়ারিং ও টি টেকনোলজি বিভাগের (এফইটি) সহযোগী অধ্যাপক ড. ওয়াহিদ উজ্জামান ‘খাদ্য তালিকার বৈচিত্রতা ও নিয়ন্ত্রিত খাদ্যাভাসের গুরত্ব’ শীর্ষক প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন।


উল্লেখ্য, এ প্রবন্ধের উপর আলোচনা করেন বিভাগটির অধ্যাপক ড. জি. এম রবিউল ইসলাম এবং সভাপতিত্ব করেন ডিএই এর অতিরিক্ত পরিচালক মো. শাহজাহান।

বিশিষ্ট গবেষক ও পুষ্টিবিজ্ঞানী সহযোগী অধ্যাপক ড. ওয়াহিদ উজ্জামান বলেন, যথাযথ পুষ্টি সম্পর্কিত যথাযথ জ্ঞান না থাকার কারণে মানুষ প্রতিনিয়ত রোগে ভুগছে। পরিমিত পুষ্টিকর খাবার না খেয়ে বিভিন্ন খাবার খাওয়ার কারণে সাম্প্রতিক সময়গুলোতে ক্যান্সারসহ বিভিন্ন রোগের প্রাদুর্ভাব বেড়ে গিয়েছে। যা অস্তিত্বে সংকট হয়ে দাড়াবে একসময়। সেজন্য মানুষের নিজেদের স্বার্থে পুষ্টি সংক্রান্ত সাধারণ জ্ঞান থাকা ও প্রয়োগ করা আবশ্যক। তিনি আরো বলেন, দেশের ৬০% নারী যথাযথ পুষ্টিকর খাবার পায় না।
তিনি এর কারণ হিসেবে মানুষের সচেতনতার অভাবকেই দায়ী করছেন। 


এ অনুষ্ঠানে অধ্যাপক ড. জি. এম রবিউল ইসলাম বলেন, জাপানের মানুষ ৮০-৮৫ বছর বয়সেও সুস্থ স্বাভাবিক ভাবে জীবন যাপন করতে পারে কিন্তু আমরা পারি না। এজন্য আমাদের অনিয়মিত খাদ্যাভাসই জড়িত। এসময় তিনি শাক বেশী করে খাওয়ার পরামর্শ দেন এবং নিয়ম-কানুন মেনে চলার পরামর্শ দেন।

আপনার সামাজিক মিডিয়ায় এই পোস্ট শেয়ার করুন

ফটো গ্যালারি

CLICK HERE FOR ADVERTISE এখানে বিজ্ঞাপন দিন Order Now: +8801714097008
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি। © সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২০