Notice :
আমাদের নিউজ সাইট এ আপনার প্রতিষ্ঠান এর বিজ্ঞাপন দিন আর প্রতিষ্ঠান কে পরিচিত করে তুলুন বিশ্বব্যাপি।
সংবাদ শিরোনামঃ
তৃতীয় বারের মত বিয়ে করলেন শমী কায়সার ‘ধর্ষণের বিরুদ্ধে বাংলাদেশ’ মহাসমাবেশ থেকে ৯ দফা দাবি জে,এস,সি এবং এস,এস,সি এর ফলাফলের ভিত্তিতে এইচ,এস,সি ফলাফলে জটিলতার আশঙ্কা ধর্ষণের সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ড স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিতে আদালতে লিয়াকত জাতীয় পত্রিকা “বিশ্ব মিডিয়া”তে কুষ্টিয়া জেলা প্রতিনিধি হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন মোঃ জাহাঙ্গীর আলম খাঁন কুউপ সদস্যদের জন্য বিশেষ ছাড় দিবেন স্মার্ট টেকনোলজি ইবির ভিসি বানানোর টেন্ডার : টাকার বস্তা নিয়ে আরেফিন এবারো মাঠে স্বপ্ন বাস্তবায়নের এক সফল কারিগর হারুন-উর-রশিদ আসকারী ড্রাগন চাষ করে সফলতার দ্বারপ্রান্তে মিরপুরের আসাদ
আমাদের ইউএনও স্যার এবং গ্রীন লাইফ হাসপাতাল

আমাদের ইউএনও স্যার এবং গ্রীন লাইফ হাসপাতাল

জীবন রহমান মহনঃ মেয়েটার নাম মোছা: শারমিন খাতুন, স্বামী মামুন হোসেন একজন ঝালমুড়ি বিক্রিতা। মামুনের বাড়ী ধরমপুর ইউনিয়নে। শারমিন খাতুনের বাড়ী গোলাপ গোলাপনগর বাঙালপাড়া। শারমিন খাতুন বাবার বাড়ীতে আশা মূলত সন্তান প্রসবের জন্য। শারমিন খাতুনের পিতা ওমর আলী একজন জেলে। পদ্মানদীতে মাছ ধরে জীবিকা নির্বাহ করে। স্বামী মামুন ও বাবা ওমর আলীর অবস্থা খুবই শোচনীয়।

গত ২৭ মে তারিখে শারমিন খাতুনের হঠাৎ প্রসববেদনা উঠে। বাবা ওমর আলী ও স্বামী মামুন দিশেহারা হয়ে যায়। শারমিনের প্রতিবেশি, হ্যালো মোকারিমপুর টিমের অন্যতম সদস্য ইশান খান তুহিন কে ডাকে। তুহিন শারমিন অবস্থা দেখে সর্বপ্রথম ভেড়ামারার নির্বাহী কর্মকর্তা জনাব সোহেল মারুফ মহোদয় কে কল দেন। তুহিন ইউএনও স্যার কে সম্পূর্ণ ঘটনা খুলে বললে ইউএনও স্যার আশ্বাস দেন যে – তুমি কুচিয়ামোড়া গ্রীন লাইফ ক্লিনিকে নিয়ে যাও আমি বলে দিচ্ছি। শারমিন কে তার পরিবার ও তুহিনসহ গ্রীণ লাইফ হাসপাতালে নিয়ে যায়। হাসপাতাল ডিউটিরত ডাক্তার শারমিন কে দেখে বলে- রোগীকে সিজার করতে হবে। এদিকে তুহিনের কাছে অসহায় গরিবের সহায়ক জনাব সোহেল মারুফ মহোদয়ের কল আসে। তুহিন কে জানাই- ক্লিনিকে সব কিছু বলে দিয়েছি, আর কোন সমস্যা নেই, কোন প্রকার সমস্যা হলে আমাকে জানিও।

পরবর্তী সময়- গ্রীন লাইফ হাসপাতাল কতৃপক্ষ সম্পূর্ণ ফ্রীতে অসহায় শারমিন খাতুনের অপরেশন করে। একটি টাকাও তারা শারমিন খাতুনের পরিবারের কাছে দাবী করেন নি। নিঃসন্দেহে গ্রীন লাইফ হাসপাতাল এখানে একটি বিশাল মানবতার পরিচয় দিয়েছেন। আমার অন্তঃস্থল থেকে গ্রীণ লাইফ হাসপাতালের সংশ্লিষ্ট সবাইকে সাধুবাদ জানাই। আর প্রিয় স্যার জনাব সোহেল মারুফ মহোদয়ের কাছে আমরা ভেড়ামারাবাসী প্রতিটি সময় ঋণের বোঝা ভারি করছি। আমার দেখা একজন শ্রেষ্ঠ মানুষ উনি। আর অসংখ্য ধন্যবাদ ছোট ভাই তুহিন কে সময় মত শারমিন খাতুনের পাশে থাকার জন্য।

শারমিনের কোল জুড়ে একটি ফুটফুটে কন্যা সন্তান হয়েছে। মেয়েটির নাম রাখা হয়েছে মিতা। মা-মেয়ে দু-জনাই সুস্থ আছেন।

তাই- ভাল থাকুক তুহিনের মত মানুষ গুলো, দেশের প্রতিটি উপজেলায় সৃষ্টি হোক আমাদের ইউএনও’ স্যারের মত মানবতার দৃষ্টান্ত, আর সাহায্যর হাত বাড়ীয়ে দিক গ্রীণ লাইফের হাসপাতালের মত প্রতিটি চিকিৎসা কেন্দ্র।

আপনার সামাজিক মিডিয়ায় এই পোস্ট শেয়ার করুন

ফটো গ্যালারি

CLICK HERE FOR ADVERTISE এখানে বিজ্ঞাপন দিন Order Now: +8801714097008
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি। © সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২০