বিশ্বের সৎ রাষ্ট্র প্রধানের তালিকায় শেখ হাসিনা ৩য়

0
33

মিরর বাংলা নিউজ  ডেস্ক: রাষ্ট্র ক্ষমতার প্রতি আকর্ষণ কিংবা ক্ষমতায় থেকে সুযোগ সুবিধার প্রতি আকর্ষণ কখনোই নিজের পরিবারের সদস্যদের মাথায় ঢুকতে দেওয়া হয়নি বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি আজ মন্ত্রিসভার বৈঠকে এমন মন্তব্য করেন।

একটি আন্তর্জাতিক গবেষণা সংস্থার করা বিশ্বের সৎ রাষ্ট্র প্রধানের তালিকায় শেখ হাসিনা ৩য় স্থান পাওয়ার প্রেক্ষিতে মন্ত্রিসভার সদস্যরা অভিনন্দন জানালে প্রধানমন্ত্রী এমন মন্তব্য করেন। মন্ত্রিসভার একাধিক সূত্র কালের কণ্ঠকে এমনটা জানান।

মন্ত্রিসভা বৈঠকের একাধিক সূত্র জানায়, সভায় জেষ্ঠ্য মন্ত্রীরা আন্তর্জাতিক গবেষণা সংস্থা পিপলস এন্ড পলিটিক্স এর গবেষণায় সৎ রাষ্ট্রপ্রধানের তালিকায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ৩য় স্থান পাওয়ায় অভিনন্দন প্রস্তাব উত্থাপন করেন। তখন এ বিষয়ে আলোচনায় অংশ নেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম। তিনি বলেন, একটা ভালো সময়ে প্রধানমন্ত্রী সৎ রাজনীতিবিদদের তালিকায় স্থান পেয়েছেন। প্রধানমন্ত্রী যখন সৎ রাষ্ট্রনায়কের তালিকায় ৩য় স্থান পেয়েছেন, তার কিছুদিন আগেই শ্রেষ্ঠ দুর্নীতিবাজদের তালিকায় পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফ ও খালেদা জিয়ার পরিবার স্থান পেয়েছেন। ফলে বিএনপির সঙ্গে তুলনাটা এখান থেকে বোঝা যায়।

তারানা হালিম আরো বলেন, রাজনীতিবিদদের খারাপ কাজের যেমন সমালোচনা করা হয়, তেমনি এ ধরনের ইতিবাচক তালিকাও করা উচিত। এতে পরবর্তী প্রজন্ম রাজনীতিতে আসতে উদ্বুদ্ধ হবে।

বিএনপির সময়ে বাংলাদেশ টানা তিন বার দুর্নীতিতে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার ফলে তরুণ প্রজন্মের মধ্যে রাজনীতিতে আসার আগ্রহ কমে গিয়েছিল। প্রধানমন্ত্রীর এ অর্জনের মধ্যে দিয়ে তরুন প্রজন্ম আবার রাজনীতিতে আসতে আগ্রহী হবে। পানামা পেপার্স কেলেঙ্কারীসহ নানা নেতিবাচক কর্মকাণ্ডে জড়িতদের যেমন তালিকা থাকে, তেমনি যারা সৎ এমপি, মন্ত্রী, রাজনীতিবিদ আছেন তাদেরও তালিকা করে প্রকাশ করা উচিত।

এমন পরিপ্রেক্ষিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ক্ষমতার অপব্যবহারের বিষয়টি কখনো আমাদের পরিবারের সদস্যদের মাথার ভেতর ঢুকতে দেওয়া হয়নি। যে কারনে ক্ষমতার প্রতি আকর্ষণ, ক্ষমতায় থেকে সুযোগ সুবিধার প্রতি আকর্ষণ এগুলো কখনোই আমাদের পরিবারের সদস্যদের মধ্যে জাগেনি।

সৎ রাষ্ট্রপ্রধানের তালিকা প্রসঙ্গে শেখ হাসিনা বলেন, বিভিন্ন ক্ষেত্রে যারা সততার সঙ্গে কাজ করেন তাদের তালিকা করে প্রকাশ করা উচিত। এতে যারা সৎ এমপি, মন্ত্রী বা রাজনীতিবিদ আছেন তারা যেমন অনুপ্রাণিত হন তেমনি তরুণ প্রজন্মের যারা আছে তারাও অনুপ্রাণিত হন।

প্রসঙ্গত, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের দুই কন্যা শেখ হাসিনা ও শেখ রেহানার সন্তানরা সবাই উচ্চ শিক্ষিত। শেখ হাসিনার এক পুত্র ও এক কন্যা এবং শেখ রেহানার এক পুত্র ও দুই কন্যা। শেখ হাসিনা চলতি মেয়াদসহ তিন বার প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করলেও পরিবারের অন্য সদস্যদের সরকার বা দলে গুরুত্বপূর্ণ কোন পদে দেখা যায়নি।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY