১ জুলাই থেকে যেসব খাতে উৎসে কর দিতে হবে

0
240

মিরর বাংলা নিউজ  ডেস্ক: প্রস্তাবিত ২০১৭-১৮ অর্থবছরের বাজেট ২৯ জুন জাতীয় সংসদে পাস হলে আগামী ১ জুলাই থেকে কার্যকর হবে উৎসে কর আদায়। নতুন অর্থবছরে রাজস্ব আদায়ে সরকারের নজর বেশি উৎসে করের দিকে।  সেদিকে নজর রেখেই চলছে এনবিআরের কর্মকৌশল। প্রস্তাবিত বাজেটে বহুল আলোচিত করপোরেট কর হার কমানো হয়নি। পাশাপাশি নতুন করে ব্যাংক সঞ্চয়ের ওপর আবগারি শুল্ক বাড়ানো হয়েছে।

নতুন বছর যেসব খাত থেকে উৎসে কর আদায় হবে সেসব খাত হচ্ছে- পেশাগত সেবাদানকারী এবং কারিগরি সেবাদানকারী অথবা কারিগরি সহায়তা ফি ২৫ লাখ টাকা হলে ১০ শতাংশ এবং বেশি হলে উৎসে কর হবে ১২ শতাংশ। ক্যাটারিং সার্ভিস, ক্লিনিং সার্ভিস, কালেকশন অ্যান্ড রিকভারি সার্ভিস, প্রাইভেট সিকিউরিটি সার্ভিস, ম্যানপাওয়ার সাপ্লাই সার্ভিস, ক্রিয়েটিভ মিডিয়া সার্ভিস, পাবলিক রিলেশন সার্ভিস, ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট সার্ভিস, ট্রেনিং, ওয়ার্কশপ আয়োজন এবং এর ব্যবস্থাপনা সেবাসহ এ ধরনের সার্ভিস ফি ২৫ লাখ টাকা হলে ১০ শতাংশ এবং এর বেশি হলে উৎসে কর ১২ শতাংশ। যে কোনও মোট বিলের পরিমাণ ২৫ লাখ টাকা হলে ১ দশমিক ৫ শতাংশ এবং এর বেশি হলে ২ শতাংশ।
জাহাজে মাল খালাসের কমিশন ২৫ লাখ টাকা পর্যন্ত ১০ শতাংশ, বেশি হলে ১২ শতাংশ। এ ছাড়া ট্রান্সপোর্ট সার্ভিস, ক্যারিং সার্ভিস, ভেহিক্যাল রেন্টাল সার্ভিস কমিশন ২৫ লাখ টাকা পর্যন্ত ৩ শতাংশ, বেশি হলে ৪ শতাংশ উৎসে কর দিতে হবে।
সংবাদপত্র, রেডিও-টিভিসহ গণমাধ্যমের যেসব প্রতিষ্ঠান বিজ্ঞাপন সরবরাহের দায়িত্ব পালন করে তাদের কমিশন ২৫ লাখ টাকা হলে ১০ শতাংশ এবং এর বেশি হলে ১২ শতাংশ উৎসে কর দিতে হবে। ‘মিডিয়া বায়িং এজেন্সি সার্ভিস’ কমিশন বা ফি নিলে ২৫ লাখ টাকা পর্যন্ত ১০ শতাংশ এবং এর বেশি হলে ১২ শতাংশ। বেশ কিছু ক্ষেত্রে মোট বিলের ওপর ২৫ লাখ টাকা পর্যন্ত দশমিক ৫ শতাংশ এবং এর বেশি হলে দশমিক ৬৫ শতাংশ উৎসে কর দিতে হবে ।
ইনডেন্টিং ফি ২৫ লাখ টাকা হলে ৬ শতাংশ, বেশি হলে ৮ শতাংশ। বিভিন্ন সময় যোগ দেওয়া বা বৈঠকের ফি, কর্মশালার সম্মানী ২৫ লাখ টাকা পর্যন্ত ১০ শতাংশ আর বেশি হলে ১২ শতাংশ। মোবাইল নেটওয়ার্ক অপারেটর, মোবাইল ব্যাংকিংয়ে কারিগরি সেবা প্রদানকারী বা সেবা সরবরাহকারী এজেন্টের ফি ২৫ লাখ টাকা পর্যন্ত ১০ শতাংশ এবং বেশি হলে ১২ শতাংশ। মোটর গ্যারেজ বা ওয়ার্কশপের ফি ২৫ লাখ টাকা পর্যন্ত ৬ শতাংশ, বেশি হলে ৮ শতাংশ। বেসরকারি কন্টেইনার পোর্ট বা ডকইয়ার্ড সেবার ফি ২৫ লাখ টাকা পর্যন্ত ৬ শতাংশ, বেশি হলে ৮ শতাংশ। শিপিং এজেন্সি কমিশন ২৫ লাখ টাকা পর্যন্ত ৬শতাংশ,বেশি হলে ৮ শতাংশ। ক্রেডিট রেটিং সেবা ফি ২৫ লাখ টাকা পর্যন্ত ১০ শতাংশ,আর বেশি হলে ১২ শতাংশ উৎসে কর দিতে হবে।

সূত্র: বাংলা ট্রিবিউন

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY