সহায়ক সরকারের কোনও বিধান সংবিধানে নেই: ওবায়দুল কাদের

0
212

মিরর বাংলা নিউজ  ডেস্ক: বিএনপির সহায়ক সরকার দাবি প্রসঙ্গে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘সহায়ক সরকারের কোনও বিধান সংবিধানে নেই। পৃথিবীর কোনও গণতান্ত্রিক দেশে সহায়ক সরকারের বিধান নেই। নির্বাচনকালীন নির্বাচন কমিশনই মূল বিষয়। নির্বাচন কমিশনের অধীনেই নির্বাচন হবে। অন্যান্য গণতান্ত্রিক দেশের মতো প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার রুটিন ওয়ার্ক দায়িত্ব পালন করবে। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়সহ যেসব মন্ত্রণালয় নির্বাচনি কাজে সহায়তা করবে সেইসব মেশিনারিজ নির্বাচন কমিশনের নিয়ন্ত্রণে থাকবে। কাজেই বিএনপির ভয় পাওয়ার কোনও কারণ নেই।’

সোমবার দুপুরে নারায়ণগঞ্জের ভুলতা এলাকায় নির্মিত ফ্লাইওভারের কাজের অগ্রগতি পরিদর্শনে এসে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

তিনি আরও বলেন, ‘বিএনপি নির্বাচনে আসবে। নির্বাচনে না আসার কোনও বিকল্প নেই। বিএনপি নির্বাচনে না এসে নিজেদের অস্তিত্ব আবারও ঝুঁকির মধ্যে ফেলবে এমনটা মনে হয় না।’

বিএনপির দুর্বার আন্দোলনের ডাক প্রসঙ্গে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘গত আট বছরে বিএনপি প্রায় ৪০ বার আন্দোলনের ডাক দিয়েছে। কিন্তু আন্দোলন হয়নি। কারণ আন্দোলনের সঙ্গে জনগণের কোনও সম্পৃক্ততা নেই। কারণ জনগণ সাড়া না দিলে সেই আন্দোলন সফল হয় না। বিএনপির যে নেতিবাচক রাজনীতির দৃষ্টান্ত সেই আন্দোলনে জনগণ সাড়া দেবে তা বিশ্বাস করার কোনও কারণ নেই।’

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, বাজেট নিয়ে এরই মধ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ইঙ্গিত দিয়েছেন, আগামী এক মাস বাজেট নিয়ে সংসদের আলোচনা হবে। সংসদের বাইরে এফবিসিসিআই, চেম্বার, সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠন, সুশীল ব্যক্তি, অর্থনীতিবিদ প্রস্তাব দিয়েছে তাদের গঠনমূলক আলোচনা, সমালোচনা দেখে  জনস্বার্থ বিঘ্ন কিছু থাকে তা সংশোধন করে বিবেচনা করা হবে। প্রস্তাবিত এই বাজেটে সরকার অনড় থাকবে, এটা ভাববার কোনও কারণ নেই।

এ সময় মন্ত্রীর সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন সড়ক ও জনপথ বিভাগের ঢাকা জোনের অতিরিক্ত প্রকৌশলী আব্দুস সবুর, ভুলতা ফ্লাইওভারের পরিচালক রিয়াজুল ইসলাম, সড়ক ও পরিবহন মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা  আবু নাসেরসহ সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY