আইএসের ভয়ে সিনাই উপত্যকা ছাড়ছে ১০০ খ্রিস্টান পরিবার

0
237

মিরর বাংলা নিউজ  ডেস্ক: মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক জঙ্গি সংগঠন ইসলামিক স্টেট (আইএস)-এর হামলার ভয়ে মিসরের উত্তর সিনাই প্রদেশ থেকে প্রায় ১০০ খৃস্টান ধর্মাবলম্বী পরিবার পালিয়ে বাঁচার চেষ্টা করছে।ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স তাদের এক প্রতিবেদনে এই কথা জানিয়েছে। গত তিন সপ্তাহে খ্রিস্টান সম্প্রদায়ের অন্তত ১৭ জনকে হত্যা করেছে আইএস। রয়টার্সের এক প্রতিবেদক জানিয়েছেন, তিনি ২৫টি পরিবারকে সকল তল্পিতল্পা নিয়েসুয়েজ খালের নিকটবর্তী ইভাঞ্জেলিক গির্জায় উপস্থিত হতে দেখেছেন। অবশ্য গির্জা কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, উত্তর সিনাইয়ের ১৬০টি পরিবারের মধ্যে প্রায় ১০০ খ্রিস্টান ধর্মাবলম্বী পরিবার পালাচ্ছে। সেই সঙ্গে প্রাদেশিক রাজধানী আরিশে পড়াশোনা করা ১৬০ জন খ্রিস্টান শিক্ষার্থীও চলে গেছে। ৩০ জানুয়ারি থেকে ২৩ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত অন্তত ১৭ জনকে হত্যার দায় স্বীকার করেছে আইএস। এর মধ্যে একজনের শিরশ্ছেদ করা হয়, একজনকে পুড়িয়ে হত্যা করা হয় এবং অন্যদের গুলি করে হত্যা করা হয়।  শুক্রবার আরিশের এক খ্রিস্টান অধিবাসী রামি মিনা ফোনে রয়টার্সকে জানান, ‘আমি মৃত্যুর অপেক্ষায় বসে থাকতে পারি না। আমি নিজের রেস্তোরাঁ বন্ধ করে দিয়েছি, আর সেখান থেকে পালিয়ে এসেছি। ওরা (আইএস জঙ্গিরা) নিষ্ঠুর।’ মিসরে প্রায়ই জাতিগত সংঘাত, অগ্নি-সংযোগ, ফসল ছিনিয়ে নেওয়া, গির্জায় হামলা এবং বাস্তুচ্যূত হওয়ার ঘটনা দেখা যায়। আরিশের অধিবাসীরা জানিয়েছেন, জঙ্গিরা অনলাইনে মৃত্যু পরোয়ানা জারি করে এবং রাস্তায় রাস্তায় লিফলেটে হুমকি লেখা থাকে, ‘খ্রিস্টানরা সেখান থেকে পালিয়ে না গেলে হত্যার সম্মুখীন হবেন’। সবজি বিক্রেতা মুনির আদেল জানান, তার বাবার নাম রয়েছে আইএসের মত্যু তালিকার দুই নম্বরে। আদেল গির্জায় নিরাপদ আশ্রয়ের অপেক্ষা করছেন বলে জানিয়েছেন। তার মা-বাবা বয়সের কারণে আরিশের বাড়ি থেকে সরে আসতে পারেননি। তারা যে কোনও সময় হত্যার শিকার হতে পারেন বলে আশঙ্কা করছেন তিনি।

সূত্র: রয়টার্স।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY