‘সাত খুনের বিচার হয়, তনু হত্যায় কেন নয়?’

0
197

মিরর বাংলা নিউজ  ডেস্ক: কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া কলেজের ছাত্রী সোহাগী জাহান তনুর বাবা ইয়ার হোসেন আক্ষেপ প্রকাশ করে বলেছেন, ‘নারায়ণগঞ্জের সাত খুনের ঘটনায় খুনিদের বিচার হতে পারে, তনু হত্যার বিচার কেন হচ্ছে না। তনুর হত্যাকারীরা কি আরও বেশি শক্তিশালী?’ তনু হত্যাকাণ্ডের ১০ মাস হয়ে গেলেও হত্যা রহস্যের কোনও কূল কিনারা না হওয়ায় এভাবেই ক্ষোভ প্রকাশ করেন ইয়ার হোসেন। শুক্রবার সন্ধ্যায় ”মিরর বাংলা নিউজ”কে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি এই কথা বলেন। ”মিরর বাংলা নিউজ”কে ফোনে ইয়ার হোসেন জানান, ‘এখন একটি ওয়াজ মাহফিলে এসেছি। আমার মেয়ে হত্যার বিচারের কোনও সম্ভাবনাই দেখছি না। হত্যাকারীদের বিচারের জন্য আল্লাহর কাছে মোনাজাত করছি।’ তনুর হত্যাকারীরা ১০ মাসেও ধরা-ছোঁয়ার বাইরে। তদন্তকারী সংস্থা একাধিকবার পরিবর্তন হলেও হত্যার রহস্য উদঘাটন করা যায়নি। ঘাতকদের শনাক্ত করা কিংবা মামলার তদন্তে দৃশ্যমান কোনও অগ্রগতিও নেই। মামলার অগ্রগতি নিয়েও কথা বলতে চায় না সিআইডি। তনুর পরিবারের সূত্র জানায়, ২০১৬ সালের ২০ মার্চ রাতে কুমিল্লা সেনানিবাসের ভেতরে একটি জঙ্গল থেকে তনুর ক্ষতবিক্ষত লাশ উদ্ধার করা হয়। পরদিন তার বাবা কুমিল্লা ক্যান্টনমেন্ট বোর্ডের অফিস সহায়ক ইয়ার হোসেন বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা আসামিদের বিরুদ্ধে কোতোয়ালি মডেল থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন। থানা পুলিশ ও ডিবি’র পর গত বছরের ১ এপ্রিল থেকে মামলাটির তদন্তের দায়িত্ব পায় কুমিল্লা সিআইডি। গত বছরের মে মাসে তনুর জামা-কাপড় থেকে নেওয়া নমুনার ডিএনএ পরীক্ষা করে তিন জন পুরুষের শুক্রানু পাওয়ার কথা গণমাধ্যমকে জানিয়েছিল সিআইডি। এদিকে দীর্ঘ ১০ মাসেও তনু হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িতদের শনাক্ত বা গ্রেফতার করতে না পারা, সামরিক-বেসামরিক অর্ধশতাধিক ব্যক্তিকে জিজ্ঞাসাবাদ করা, দুই দফা ময়নাতদন্তের পরও প্রতিবেদনে মৃত্যুর সুস্পষ্ট কারণ উল্লেখ করতে না পারা, এমনকি ডিএনএ পরীক্ষায় তিন জন পুরষের শুক্রানু পেলেও এ পর্যন্ত ডিএনএ ম্যাচ করে ঘাতকদের শনাক্ত করতে না পারায় এ মামলার ভবিষ্যৎ কিংবা বিচার পাওয়া নিয়ে তনুর পরিবার, মানবাধিকার সংগঠনসহ বিভিন্ন মহলে সংশয় দেখা দিয়েছে। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ও সিআইডি-কুমিল্লার সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার জালাল উদ্দীন আহমেদ বলেন, ‘মামলার তদন্ত চলছে, তদন্তনাধীন বিষয়ে মন্তব্য করতে চাই না।’

সূত্র: বাংলাট্রিবিউন

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY