ত্বক ও চুলের যত্নে সরিষার তেল

0
149

মিরর বাংলা নিউজ  ডেস্ক: সরিষার তেল ত্বক ও চুল সুস্থ রাখতে সাহায্য করে। সরিষার তেল ওমেগা ৩, ওমেগা ৬, ফ্যাটি অ্যাসিড, ভিটামিন ই ও অ্যান্টি-অক্সিডেন্টের উৎস।  রূপচর্চায় এটি নিয়মিত ব্যবহার করতে পারেন নিশ্চিন্তে। জেনে নিন কীভাবে রূপচর্চায় ব্যবহার করবেন সরিষার তেল-
প্রাকৃতিক সানস্ক্রিন লোশন হিসেবে
সরিষার তেলে রয়েছে ভিটামিন ই যা সূর্যের ক্ষতিকারক রশ্মির পাশাপাশি প্রকৃতির অন্যান্য দূষিত পদার্থ থেকে আপনার ত্বককে রক্ষা করে। বাইরে বের হওয়ার আগে সামান্য সরিষার তেল ম্যাসাজ করে নিন ত্বকে।
ঠোঁট ফাটা দূর করতে
লিপ বাম ব্যবহার করার পরও ঠোঁট ফাটা থেকে মুক্তি মিলছে না? সরিষার তেল ম্যাসাজ করুন ঠোঁটে। এটি প্রাকৃতিক ময়েশ্চারাইজ হিসেবে কাজ করবে এটি।
ত্বকের কালচে দাগ দূর করতে
মেছতা বা ত্বকের কালচে দাগ দূর করতে পারে সরিষার তেলের ফেসপ্যাক। বেসনের সঙ্গে পরিমাণ মতো সরিষার তেল মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করুন। মিশ্রণটি ত্বকে ম্যাসাজ করে ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। ধীরে ধীরে ফিকে হয়ে আসবে দাগ।
অকালে চুল পাকা প্রতিরোধ করতে
সরিষার তেলে রয়েছে অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল ও অ্যান্টি-ফাঙ্গাল উপাদান যা অকালে চুল পাকা প্রতিরোধ করে। এজন্য সমপরিমাণ অলিভ অয়েল ও সরিষার তেল একসঙ্গে মিশিয়ে মাথার তালুতে ম্যাসাজ করুন। গরম তোয়ালে দিয়ে চুল পেঁচিয়ে নিন। কিছুক্ষণ পর মাইল্ড শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে ফেলুন চুল।
চুলের বৃদ্ধি বাড়াতে
সরিষার তেলে থাকা বেটা-ক্যারোটিন, ফ্যাটি অ্যাসিড, ক্যালসিয়াম ও ম্যাগনেসিয়াম  চুলের দ্রুত বৃদ্ধিতে সাহায্য করে।
দাঁতের যত্নে
লেবুর রসের সঙ্গে সরিষার তেল মিশিয়ে দাঁতে ম্যাসাজ করুন। নিয়মিত এটি ব্যবহার করলে দাঁতের হলদে ভাব দূর হওয়ার পাশাপাশি দাঁতের গোড়া শক্ত হবে।
খুশকি দূর করতে
নিয়মিত মাথার তালুতে সরিষার তেল ম্যাসাজ করলে দূর হয় খুশকি। এছাড়া মাথার ত্বকে অ্যালার্জি থাকলে সেটাও দূর করে সরিষার তেল।
প্রাকৃতিক ক্লিনজার হিসেবে
ত্বকে সরিষার তেল ম্যাসাজ করলে লোমকূপের ভেতর থেকে দূর হয় ময়লা। প্রতিদিন বাইরে থেকে এসে সামান্য সরিষার তেল হাতের তালুতে নিয়ে ম্যাসাজ করুন ত্বকে। বাড়বে ত্বকের উজ্জ্বলতাও।

তথ্য: বোল্ডস্কাই

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY