৫৭ ধারার পরিবর্তে নতুন ডিজিটাল সিকিউরিটি অ্যাক্ট আসছে

0
242

মিরর বাংলা নিউজ  ডেস্ক: নানা সমালোচনা ও বিতর্কের মুখে পরিবর্তন করা হচ্ছে তথ্য প্রযুক্তি আইনের (আইসিটি অ্যাক্ট) ৫৭ ধারা। এর পরিবর্তে নতুন করে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন (ডিজিটাল সিকিউরিটি অ্যাক্ট) প্রণয়ন করা হচ্ছে। নতুন এ আইনটিতে ৫৭ ধারাকে ঘিরে সেসব সংশয় ও প্রশ্ন রয়েছে তার জবাব পাওয়া যাবে বলে মন্তব্য করেছেন আইনমন্ত্রী অ্যাডভোকেট আনিসুল হক। শনিবার দুপুরে রাজধানীর সিরডাপ মিলনায়তনে মানবাধিকার দিবস-২০১৬ উপলক্ষে আয়োজিত এক আলোচনা সভায় উপস্থিত এক আলোচকের ৫৭ ধারা বিষয়ে প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন। ৫৭ ধারায় পরিবর্তন এনে নতুন ডিজিটাল সিকিউরিটি অ্যাক্ট হচ্ছে জানিয়ে আইনমন্ত্রী বলেন, ২০০৬ সালে তথ্য প্রযুক্তি আইনটি করা হয় মূলত ‘ইলেকট্রনিক সিগনেচার’কে বৈধতা দেওয়ার জন্য। পরে ২০১৩ সালে এতে কিছু সংশোধনী আনা হয় এবং ৫৭ ধারাকে সেই সংশোধনীর (অ্যামেন্ডমেন্ট) মধ্যে যুক্ত করা হয়। তিনি বলেন, তখন থেকে এই ৫৭ ধারা নিয়ে সুশীল সমাজে কিছু প্রশ্ন উঠেছে, বলা হচ্ছে আইনের এই ধারাটি মানুষের বাক স্বাধীনতা খর্ব করাসহ অন্যান্য ক্ষেত্রে নানা সীমাবদ্ধতা তৈরি করছে। আর সে জন্যই ৫৭ ধারাকে অগ্রাধিকার দিয়ে নতুন একটি ডিজিটাল সিকিউরিটি অ্যাক্ট হচ্ছে। নতুন এই আইনে যেন এমন প্রশ্ন না থাকে, কোন ‘ভাওলেশন’ যেন না থাকে সেইভাবেই নতুন আইন ও ধারা প্রণয়ন করা হচ্ছে। ৫৭ ধারা নিয়ে সাধারণের মনে যত প্রশ্ন রয়েছে তার সঠিক জবাব নতুন আইনটিতে পাওয়া যাবে বলেও তিনি মন্তব্য করেন। এর আগে অনুষ্ঠানে কি-নোট পেপার উপস্থাপন করেন ব্যারিস্টার এম. আমির-উল ইসলাম। জাতীয় মানবাধিকার কমিশন বাংলাদেশের (এনএইচআরসিবি) চেয়ারম্যান কাজী রিয়াজুল হক অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন। সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন এনএইচআরসিবি এর পূর্ণকালীন সদস্য মো. নজরুল ইসলাম।

সূত্র: বাংলাট্রিবিউন

 

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY