রামেক ছাত্রলীগের মধ্যে উত্তেজনা-মোটরসাইকেল ভাংচুর

0
237

মিরর বাংলা নিউজ  ডেস্ক: কম্পানীর নিকট থেকে সুবিধা না পেয়ে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ ছাত্রলীগের (ইন্টার্নি চিকিৎসক) মধ্যে ব্যাপকেউত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। শুক্রবার রাত সাড়ে ১১টা দিকে তারা রামেক অডিটোরিয়ামের সামনে রাখা বেক্সিমকো কম্পানীর বেশ কয়েকটি মোটরসাইকেলও ভাঙচুর করে।

খবর পেয়ে রাত ১২টার দিকে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এ ঘটনার পরে রামেক অধ্যক্ষের কার্যালয়ের সামনে লাঠি-সোঠা নিয়ে জড়ো হয়ে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা বিক্ষোভ করতে থাকে।

স্থানীয় সূত্রগুলো ‘মিরর বাংলা নিউজ’ কে জানায়, বেক্সিমকো কম্পানীর নতুন কিছু ওষুধ মার্কেটে আসায় সেগুলো প্রচারের জন্য কম্পানীটির পক্ষ থেকে গতকাল শুক্রবার দিনভর রাজশাহী মেডিকেল কলেজের শিক্ষকদের (চিকিৎসক) নিয়ে বিভিন্ন কর্মসূচি হাতে নেয়া হয়। এর মধ্যে ছিল কনসার্ট, খাবার, র‌্যাফেল ড্রসহ চিকিৎসকদের জন্য নানা উপঢৌকনের ব্যবস্থা।

রামেক কায়ছার মেমোরিয়াল অডিটোরিয়ামে অনুষ্ঠিত ওই অনুষ্ঠানে ছাত্রলীগের কিছু নেতাকর্মী অনেকটা জোর করেই ঢুকে পড়েন। এরপর রাত সাড়ে ১১টার দিকে তারাও্ র‌্যাফেল ড্রতে অংশগ্রহণসহ অন্যান্য সুযোগ-সুবিধা দাবি করেন। কিন্তু কম্পানীর লোকজন তাতে আপত্তি জানান।

এতে ক্ষিপ্ত হয়ে ছাত্রলীগের নেতৃত্বে রামেকের ইন্টার্নি চিকিৎসকরা অডিটোরিয়ামের বাইরে দাঁড় করে রাখা বেক্সিমকো কম্পানীর বেশিকিছু মোটরসাইকেল ভাংচুর করতে থাকেন। এ নিয়ে ব্যাপক উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। পরে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

তবে এ ঘটনার পরে রামেক অধ্যক্ষের কার্যালয়ের সামনে লাঠি-সোঠা নিয়ে জড়ো হয়ে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা বিক্ষোভ করতে থাকে।  রাত সাড়ে ১২টায় এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত উত্তেজনা বিরাজ করছিল।

বিষয়টি স্বীকার করে নগরীূর রাজপাড়া থানার ওসি আমান উল্লাহ সিল্কসিটি নিউজকে‘মিরর বাংলা নিউজ’ কে বলেন, পরিস্থিতি এখন নিয়ন্ত্রণে আছে। সামান্য বিষয় নিয়ে রামেকের ইন্টার্নি চিকিৎসকদের মধ্যে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY