রাবিতে অনলাইনে ভর্তির আবেদন করবেন যেভাবে

0
272

মিরর বাংলা নিউজ  ডেস্ক:রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষে স্নাতক প্রথম বর্ষে ভর্তি আবেদন প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। রবিবার (১৮ সেপ্টেম্বর) দুপুর ১২টা থেকে এ প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। আবেদন চলবে ২ অক্টোবর রাত ১২টা পর্যন্ত।
ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট http://admission.ru.ac.bd হোম পেজে যেতে হবে। পেজের নিচের দিকে থাকা অনলাইন অ্যাপ্লিকেশন-এ ক্লিক করতে হবে। পরবর্তী পেজে গিয়ে নিচের দিকে ‘স্টার্ট অ্যাপ্লিকেশন’-এ ক্লিক করে আবেদনকারীর এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষার রোল, শিক্ষা বোর্ড ও রেজিস্ট্রেশন নম্বর দিতে হবে।
সঠিকভাবে তিনটি অপশন পূরণ করে সাবমিট করলে আবেদনকারীর প্রয়োজনীয় সকল ব্যক্তিগত তথ্য এবং এসএসসি ও এইচএসসি’র রেজাল্ট দেখানো হবে। একই সঙ্গে ওই দুই পরীক্ষায় অর্জিত রেজাল্টের ভিত্তিতে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ইউনিটভিত্তিক আবেদনের যোগ্যতাও দেখানো হবে।
এরপর পছন্দের ইউনিটের পাশে থাকা ‘অ্যাপ্লাই’ অপশনে ক্লিক করে পরবর্তী ধাপে যেতে হবে। সেখানে সদ্য তোলা একশ’ কিলোবাইটের জেপিজি ফরম্যাটের রঙিন ছবি আপলোড করতে হবে। একই ধাপে ‘কোটা’ (যদি থাকে) সুবিধা নিতে আগ্রহীদের তা নির্ধারণ করতে হবে এবং ব্যক্তিগত বা অভিভাবকের মোবাইল নম্বর দিতে হবে।
পরবর্তী ধাপে আবেদনকারীকে পূরণ করা পুরো আবেদন ফরম দেখানো হবে। সেখানে সংশোধন প্রক্রিয়া শেষে ‘সাবমিট অ্যাপ্লিকেশন’ ক্লিক করলে আবেদন সম্পন্ন হবে এবং একটি স্লিপ দেখানো হবে। স্লিপে ‘অ্যাপ্লিকেশন আইডি’, ‘বিল নম্বর’ ও ফি এর পরিমাণ থাকবে।
স্লিপটি প্রিন্ট করে আবেদনকারীকে সংরক্ষণ করতে হবে। স্লিপে থাকা ‘বিল নম্বর’ ব্যবহার করে ডাচ্ বাংলা মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে নির্ধারিত ফি পরিশোধ করতে হবে। ফি পরিশোধ সম্পন্ন হলে ডাচ্-বাংলা মোবাইল ব্যাংকিং থেকে ফি পরিশোধ নিশ্চিতকরণ এসএমএস পাওয়া যাবে। পরবর্তী ৪৮ ঘন্টার মধ্যে সংশ্লিষ্ট আবেদনের তথ্য ওয়েবসাইটে আপডেট করা হবে। তবে ভর্তিচ্ছু শুধুমাত্র প্রবেশপত্র হাতে পাওয়ার পর রোল নম্বর জানতে পারবে।
এছাড়া আবেদন সম্পন্নের পর ছবি পরিবর্তন করতে চাইলে ২০০ টাকা ফি প্রদান ও যথাপোযুক্ত প্রমাণাদির মাধ্যমে ছবি পরিবর্তন করা যাবে। ওই ছবি সকল ইউনিটে ভর্তি আবেদন, ভর্তি প্রক্রিয়া ও পরবর্তীতে বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল ক্ষেত্রে ব্যবহার হবে।
আবেদন ফি পরিশোধের নিয়ম : ডাচ্-বাংলা মোবাইল ব্যাংকিং চালু আছে এমন যেকোন নম্বরে *৩২২# ডায়াল করতে হবে। দ্বিতীয় ধাপে গিয়ে ‘পেমেন্ট’ অপশন ও তৃতীয় ধাপে ‘বিল পে’ অপশন সিলেক্ট করতে হবে।

চতুর্থ ধাপে ‘ইন্টার বিলার আইডি’ এর স্থলে ৩৭৭ টাইপ করতে হবে। পঞ্চম ধাপে ‘ইন্টার বিল নাম্বার’ এর স্থলে আবেদন শেষে বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট থেকে প্রাপ্ত স্লিপে থাকা ‘বিল নাম্বার’ দিতে হবে। ষষ্ঠ ধাপে ‘ইন্টার অ্যামাউন্ট’ স্থলে নির্ধারিত ফি টাইপ করে পরবর্তী ধাপে নিজের ডাচ্-বাংলা মোবাইল ব্যাংকিংয়ের পাসওয়ার্ড ব্যবহার করতে হবে।
এরপরই ফি পরিশোধের নিশ্চিতকরণ এসএমএস আসবে। ওই এসএমএস-এ থাকা ‘ট্রন্সসেকশন আইডি (ঞীহওউ) সংরক্ষণ করতে হবে। যা প্রবেশপত্র সংগ্রহের ক্ষেত্রে প্রয়োজন পড়বে।

সফল আবেদনকারীরা আগামী ১৬ অক্টোবর সকাল ১০টা থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট থেকে প্রবেশপত্র সংগ্রহ করতে পারবেন। আগামী ২৩ থেকে ২৭ অক্টোবর ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। বিশ্ববিদ্যালয়ের আইসিটি সেন্টারের পরিচালক অধ্যাপক খাদেমুল ইসলাম মোল্ল্যা এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
চলতি শিক্ষাবর্ষ থেকে দ্বিতীয়বার ভর্তির সুযোগ না থাকায় আবেদনের নূন্যতম যোগ্যতা কমানো হয়েছে। তবে বিগত বছরের চেয়ে ৭টি ইউনিটে আবেদন ফি বাড়ানো হয়েছে। নয়টি ইউনিটে ভাগ করে এ ভর্তি পরীক্ষা নেওয়া হবে।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY