একদিনেই মোটরসাইকেল রেজিস্ট্রেশন

0
263

মিরর বাংলা নিউজ  ডেস্ক: হয়রানি ও কোনো ধরনের ঝামেলা ছাড়াই একদিনের মধ্যে মোটরসাইকেলের রেজিস্ট্রেশন করার উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। আন্তর্জাতিক সিভিল সার্ভিস দিবস উপলক্ষে ওয়ান স্পট সার্ভিসের আওতায় রেজিস্ট্রেশনের কার্যক্রম পরিচালনা করছে বাংলাদেশ রোড ট্রান্সপোর্ট অথরিটি (বিআরটিএ) কর্তৃপক্ষ। আজ বৃহস্পতিবার রাজধানীর মানিকমিয়া এভিনিউ (রাজধানী উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে) বিআরটিএর উদ্যোগে স্থাপিত অস্থায়ী ক্যাম্পে তাৎক্ষণিক মোটর সাইকেল রেজিস্ট্রেশন কার্যক্রমের উদ্বোধন করবেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

বিআরটিএ সূত্রে জানা গেছে, একদিনেইব মোটরসাইকেলের রেজিস্ট্রেশন সঙ্গে সঙ্গে পাওয়া যাবে রেজিস্ট্রেশন নম্বরও। এ সেবাটি আপাতত কনটিনিউ করা হচ্ছে না একদিনের জন্যই দেয়া হচ্ছে। আন্তর্জাতিক সিভিল সার্ভিস দিবস উপলক্ষে বিশ্বের অনেক দেশ পরিবহন সেক্টরে বিভিন্ন বিশেষ সেবা দিয়ে থাকে। দিবসটি উপলক্ষে এ বছর বিআরটিএ একদিনে মোটরসাইকেল রেজিস্ট্রেশন ও নম্বর দেয়ার উদ্যোগ নিয়েছে। শুধু আজ বৃহস্পতিবার (২৩জুন) রাজধানীর মানিক মিয়া এভিনিউয়ে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র সঙ্গে নিয়ে গিয়ে নির্দিষ্ট ফি জমা দিলেই হয়ে যাবে রেজিস্ট্রেশন ও পাওয়া যাবে নম্বর। সকাল সাড়ে ১০টা থেকে বেলা ৩টা পর্যন্ত ঢাকা মেট্টোপলিটন এলাকার মোটরসাইকেল স্পটে রেজিস্ট্রেশন করা যাবে।

একদিনে রেজিস্ট্রেশনের জন্য যেসব কাগজ সঙ্গে আনতে হবে: ১. মালিক ও আমদানিকারক/ডিলার কর্তৃক যথাযথভাবে পূরণ ও স্বাক্ষর করা নির্ধারিত আবেদনপত্র। ২. মালিকের ৩ কপি সদ্য তোলা স্ট্যাম্প সাইজের রঙিন ছবি। ৩. বিল অব এন্ট্রি, ইনভয়েস, বিল অব লেডিং ও এলসিএ কপি (ফটোকপি আমদানিকারক অথবা শোরুম মালিক কর্তৃক সত্যায়িত)। ৪. সেল সার্টিফিকেট/সেল ইন্টিমেশন/বিক্রয় প্রমাণপত্র। ৫. প্যাকিং লিস্ট, ডেলিভারি চালান ও গেট পাস। ৬. (ক) মূসক-১, (খ) মূসক-১১(ক) এবং (গ) ভ্যাট পরিশোধের চালান। ৭. সিকেডি মোটরযানের ক্ষেত্রে বিআরটিএর টাইপ অনুমোদন ও অনুমোদিত সংযোজনী তালিকা।

৮. রেজিস্ট্রেশন ফি জমাদানের রসিদ। ৯. ব্যক্তি মালিকানাধীন আবেদনকারীর ক্ষেত্রে জাতীয় পরিচয়পত্র/পাসপোর্ট/ টেলিফোন বিল/ বিদ্যুৎ বিল ইত্যাদির যে কোনো একটির সত্যায়িত ফটোকপি এবং মালিক প্রতিষ্ঠান হলে প্রতিষ্ঠানের প্যাডে চিঠি। তা ছাড়া ১২৫ ও তদূর্ধ্ব সিসি ক্ষমতাসম্পন্ন মোটরসাইকেল রেজিস্ট্রেশনের ক্ষেত্রে ৫০ টাকার নন-জুডিসিয়াল স্ট্যাম্পে অঙ্গীকারনামা (অঙ্গীকারনামার নমুনা বিআরটিএর ওয়েবসাইটে ও স্পটে পাওয়া যাবে)।

সূত্র: কালের কণ্ঠ

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY