রিজার্ভ চুরি : ফিলরেমের লাইসেন্স বাতিল

0
241

মিরর বাংলা নিউজ  ডেস্ক: বাংলাদেশের রিজার্ভ চুরির ঘটনায় ফিলিপাইনের রেমিট্যান্স কোম্পানি ফিলরেমের লাইসেন্স বাতিল করা হয়েছে। ফিলিপাইনের কেন্দ্রীয় ব্যাংক দ্য ব্যাংকো সেন্ট্রাল এনজি ফিলিপিনাস তাদের লাইসেন্স বাতিল করে।

বুধবার রাতে আন্তর্জাতিক বার্তা সংস্থা রয়টার্স এ খবর জানিয়েছে।

বুধবার ফিলিপাইনের কেন্দ্রীয় ব্যাংক জানায়, হ্যাকারদের চুরিকৃত বাংলাদেশের ৮১ মিলিয়ন ডলার স্থানান্তরে ফিলরেমকে ব্যবহার করা হয়েছে বলে দেশটির অর্থপাচার প্রতিরোধ কাউন্সিলের অনুসন্ধানকারীরা তাদেরকে জানিয়েছেন। সে কারণে রেমিট্যান্স কোম্পানিটির লাইসেন্স বাতিল করা হয়েছে।

গত ২৮ এপ্রিল ফিলিপাইন অর্থপাচার প্রতিরোধ কাউন্সিল (এএমএলসি) ফিলরেম সার্ভিস করপোরেশনের বিরুদ্ধে অভিযোগ তোলে। তাদের অভিযোগ, বাংলাদেশ ব্যাংকের চুরি হওয়া টাকা ফিলরেম অস্পষ্টতার সঙ্গে লেনদেন করে এবং ওই টাকা ওয়েবের মাধ্যমে স্থানান্তর ও ফিলিপাইনের রিজাল ব্যাংকের মাধ্যমে রূপান্তর করে। পরবর্তী সময়ে ওই টাকা ম্যানিলাতে ক্যাসিনো ও জুয়াড়িদের হাতে পৌঁছে দেওয়া হয়।

তবে ফিলরেম তাদের বিরুদ্ধে এসব অভিযোগ অস্বীকার করেছে।

গত ফেব্রুয়ারিতে কিছু অচিহ্নিত হ্যাকার বাংলাদেশ ব্যাংকের কম্পিউটারে অনুপ্রবেশের মাধ্যমে দ্য ফেডারেল ব্যাংক অব নিউ ইয়র্কে এর অ্যাকাউন্ট থেকে ৯৫১ মিলিয়ন ডলার স্থানান্তরের চেষ্টা চালায়। তাদের এমন ৩৫ বার চেষ্টার মধ্যে ৩৪ বারই ফিলিপাইনের রিজাল কমারশিয়াল ব্যাংকিং করপোরেশনে অর্থ স্থানান্তরের চেষ্টা চালানো হয়। এসব প্রচেষ্টার অধিকাংশই ব্লক করা সম্ভব হয়। তবে রিজালের ম্যানিলা ব্রাঞ্চে চারিট ভুয়া অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে ৮১ মিলিয়ন ডলার সরিয়ে নিতে সমর্থ হয় হ্যাকাররা।

‘গুরুতর নিয়ম লঙ্ঘনের দায়ে’ ফিলরেম ছাড়াও আরো দুটি রেমিট্যান্স কোম্পানির লাইসেন্স বাতিল করা হয়েছে। তবে ফিলিপাইনের কেন্দ্রীয় ব্যাংক এ ব্যাপারে বিস্তারিত জানায়নি।

সূত্র: রাইজিংবিডি

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY